“Those who want to “help” (!) the country, they have some small addiction to hunting. To sate their hunger, it is the Bishyajits who have to be the hunted deer.”

Ruling Awami League party activists chop an innocent man to death. They suspected that he was an opposition activist supporting the nationwide blockade. Recently, Home Minister has urged party activists to take over law enforcement and resist opposition activities.

BCL Hartal

In 1971 some folks supported Pakistani army kill Bangali freedom fighters and Independence loving people. 40 years later we still want revenge — we want them killed — judicially on non-judicially.

Can the two women in the picture — the family of the killed, demand the same — kill those who committed the killing and who ordered the killing and who facilitated the killing?

“When the first blow felt, blood must have spurted out. Whose face floated in front of your eyes? Your mother Kalpana Das, who used every bit of love to grow this human, born from a drop of polluted blood? Or was it father Ananta Das, who drained his own body to bring that one new shirt for a young boy’s wish? Or another loved one, who would remove the fallen hair from forehead and give a shy smile and hide? But why do we still cry when we see another Bishyajit die? Is this anything new? Bishyajits were born to die. For decades they have been dying. Those who want to “help” (!) the country, they have some small addiction to hunting. To sate their hunger, it is the Bishyajits who have to be the hunted deer. When the arrow pierces deep inside his heart, the thrill of hunt fulfills the powerful.”
“প্রথম কোপটি যখন শরীরে পড়লো, নিশ্চয়ই ফিনকি দিয়ে রক্ত ঝরলো, কার চেহারাটি চোখের সামনে ভেসে উঠেছিল তখন? মা কল্পনা দাস, যে নিজের সবটুকু মমতা ঢেলে এক ফোঁটা দূষিত রক্তের দলাকে তিল তিল করে মানুষ বিশ্বজিতের রূপ দিয়েছেন? নাকি বাবা অনন্ত দাস, শরীরের প্রতিটি রক্তবিন্দু ঘামে রূপান্তর করে যে নতুন শার্টটি এনেছেন ছেলের আব্দার পূরণ করতে? নাকি অন্য কোনো প্রিয়জনের, যে কপালে এসে পড়া চুলটি সরিয়ে লাজুক হেসে আড়ালে লুকাতো? কিন্তু এখনো কেন আমরা কষ্ট পাই বিশ্বজিতদের মরতে দেখলে! এ কি নতুন হলো? বিশ্বজিৎদের তো মরতেই হবে। যুগে যুগে মরেছেও। দেশের যারা কল্যাণ (!) চায়, তাদের এক-আধটু শিকারের নেশা থাকবে। তাদের খায়েশ মেটাতে হরিণ শাবক তো বিশ্বজিৎরাই হবে। তীরের ফলা বিশ্বজিৎদের বুকের যতো গভীরে গেঁথে যাবে, শিকারের মজাতো ততই বেশি হবে ক্ষমতা লিপ্সুদের।”

“He had a tailor shop in Dhaka. 6 years ago Bishyajit started this tailoring business in Dhaka’s Shakhari Bazaar. Sunday while he was walking to the shop [during the hartal], a gang of men attacked him with machetes and hacked him to death… His family informed that Bishyajit was not connected with any political party.”
“ঢাকায় তার একটি দর্জি দোকান আছে। ৬ বছর আগে ঢাকার শাখারি বাজারে দর্জি ব্যবসা শুরু করেন বিশ্বজিৎ। রোববার দোকানে যাওয়ার পথে কিছু লোক তাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে।.. বিশ্বজিতের কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা ছিলো না বলে তার পরিবার জানান।”

বিশ্বজিৎ, ক্ষমা করো ভাই, ক্ষমা করো তোমার প্রভুকে! – সাজেদা সুইটি
http://www.banglanews24.com/detailsnews.php?nssl=88b7bdd71070c765de2f6a94525baf23

 

Bishyajit das being attacked. BanglaNews24

Bishyajit Das being attacked. Banglanews24